ট্রাংকুলাইজার ও তার প্রতিকার

  • 0

ট্রাংকুলাইজার ও তার প্রতিকার

Category : Health Tips

ট্রাংকুলাইজার ও তার প্রতিকার

ট্রাংকুলাইজার কি ?

ট্রাংকুলাইজার হচ্ছে বিষন্নতা উদ্বেগরোধ অথবা নিদ্রাহীনতা লাঘবে ব্যবহৃত কিছু মাদকদ্রব্য জাতীয় ওষুধ। বাংলাদেশে চিকিৎসকগণ প্রায়ো জনবোধ এসব ওষুধ গ্রহণের পরামর্শ দিয়ে থাকেন। এগুলো মস্তিস্ক ও শরীরে ক্রিয়া করে ও নিস্তেজ অবস্থার সৃষ্টি করে,  তবে এতে ঘুমের ওষুধের মত ততটা তন্দ্রা ভাব সৃষ্টি হয় না। ট্রাংকুলাইজার সাধারণতঃ ট্যাবলেট অথবা ক্যাপসুল আকারে পাওয়া যায়। এগুলো বিভিন্ন রংয়ের হয়ে থাকে। বাংলাদেশ সুপরিচিত কয়েকটি ট্রাংকুলাইজার হচ্ছে ডায়াপিজিপাম, যা ভ্যালিয়া, রিলাক্সেন ও সেডিল নামে পরিচিত,  লোরাজিপাম অথবা এ্যাটি ভান ক্লোরডায়জিপোক্সাইড অথবা লিব্রিয়াম। অপব্যঅবহারকারীদের মধ্যে এটা ‘সেক্সি’ নামে পরিচিত।

ট্রাংকুলাইজার গ্রহণের প্রতিক্রিয়া কি কি?

বিভিন্ন ট্রাংকুলাইজার প্রতিক্রিয়ায় তারতম্য নির্দিষ্ট ওষুধের শক্তির উপর নির্ভর করে।

স্বল্প মেয়াদী প্রতিক্রিয়াঃ স্বল্প পরিমাণ গ্রহণের ফলে মাংসপেশীল শৈথিল্য, সমন্বয়ে সামান্য ঘাটতি, মানসিক সপ্রতিভাতা ঘাটতি ইত্যাদি দেখা দিতে এবং নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করার ক্ষমতা লোপ পেতে পারে। অন্যান্য মাদকদ্রব্যের মতই ট্রাংকুলাইজার ব্যবহারকালে গাড়ি অথবা মেশিন চালানোর মত কাজ করা বিপজ্জনক। কোনে কোনে ক্ষেত্রে চামড়ার ফুসকুড়ি, বমি বমি ভাব ও জিশুনর মত পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে। যেমনঃ উগ্র মেজাজ, রাগন্বিত ভাব ও নিদ্রাহীনতা। অধিক মাত্রায় সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি মাতালের মত আচরণ করতে পারে এবং  পরে ঘুমিয়ে পড়তে পারে। অন্যন্য মাদক দ্রব্যের সঙ্গে এর ব্যবহার খুবই বিপজ্জনক। কেননা, এত এর প্রতিক্রিয়া কয়েকগুণ বেড়ে যায়।

দীর্ঘ মেয়াদি প্রতিক্রিয়াঃ দীর্ঘ দিন ধরে ব্যবহার করলে কোনো কোনো ট্রাংকুলাইজার জীবনের সকল বিষয়ে উৎসাহ হারিয়ে ফেলার মত অবস্থা সৃষ্টি করে। মাথঅ ব্যথা, পাকস্থলীর গোলযোগ, চামড়া ফুসকুড়ি এবং ক্রোধ ও বিরক্তির অনুভূতি হতে দেখা যায়। আসক্ত মায়েদের গর্ভস্থ সন্তানদের যকৃৎ মস্তিষ্ক, হৃৎপিন্ড ও ফুসফুসে ডায়াজিপাম জমা হতে দেখা গেছে। জন্মের হার এসব শিশুর মধ্যে পরিহার জনিত লক্ষণসমূহ দেখা দিতে পারে।

ট্রাংকুলাইজার কি নেশা সৃষ্টিকারী ? নিয়মিত ব্যবহার করলে ট্রাংকুলাইজার সহনশীলতা সৃষ্টি করতে পারে, অর্থ্যাৎ একই ফল পেতে অধিক মাত্রায় মাদক দ্রব্য গ্রহণ করতে হবে ? মানসিক ও শারিরিক নির্ভরশীলতা ও গড়ে উঠতে পারে। হঠাৎ করে ব্যবহার বন্ধ করে দিলে পরিহার জনিত লক্ষণ দেখা দেয়।


Leave a Reply