স্বল্প ওষুধে জটিল রোগ নিয়ন্ত্রণ

  • 0

স্বল্প ওষুধে জটিল রোগ নিয়ন্ত্রণ

Category : health tips bangla

দুই দিনের অর্জন

বদলে যাবে জীবন

স্বল্প ওষুধে জটিল রোগ নিয়ন্ত্রণ

 

কখন হার্ট অ্যাটাক হবে তা কি কেউ জানে ? কেন অপেক্ষা করবেন অ্যাটারকের, যখন তা নিবারণ করতে পারবেন ? যে কোন হাসপাতালে যান দেখবেন একই চিকিৎসার ধারা। বাইপাস বা এনজিওপ্লাস্টির মাদ্যমে হার্টের চিকিৎসা। তাৎক্ষনিকভাবে জীবন বাচানোর জন্য মানুষ অপারেশনের শরণাপন্ন হয়। কিন্তু কথা হচ্ছে কেন আমরা এই এমার্জেন্সির কাছে নিজেকে সপে দিব ?  কথা হলো কেন আমরা নিজের দেহ সম্পর্কে অজ্ঞ থাকব ? বিষয়টা হচ্ছে এরকম যে, আপনি গাড়ি চালাচ্ছেন কিন্তু হঠ্যাৎ যে ইঞ্জিন নষ্ট হয়ে যেতে পারে সে ব্যাপারে আপনার কোন উদ্বেগই নাই ! চলার পথ মসৃণ রাখতে হলে ইঞ্জিনের সুরক্ষা করতে হবে। ঠিক একই ভাবে আমাদের দেহ একটা মুল্যবান মেশিন বা যন্ত্র যা সৃষ্টি করেছেন সৃষ্ট্রা। এই দেহকে সচল রাখতে হলে বিশেষ যত্ন নিতে হয়। চিকিৎসা পদ্ধতির উন্নতির যুগে ক্রমশ বেড়ে চলৈছে হার্টের রোগির সংখ্যা। এরকম এক পরিস্থিতিতেই বাংলাদেশে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে হলিস্টিক হেলথ কেয়ার সেন্টার। এটি মুলত রোগ প্রতিরোধ ও প্রতিকারের সেন্টার, বিনা অপারেশননে ও স্বল্প ওষুধ সেবনের মাধ্যমে হৃদরোগী ও কয়েকটি ব্যাধির রুগিদের চিকিৎসা দিয়ে থাকে। এইসব রোগীদের মধ্যে রয়েছে রক্তচাপ, ডায়াবেটিস, টেনশন ও মাইগ্রেন। গত ২ বছরে করোনারি আর্টারি ব্লকেজের চিকিৎসার ৯৫ বাগ সাফল্য পেয়েছে এই সেন্টার। আজকাল অনেকেরই হেলথ পলিসি আছে, হাসপাতালে খরচ যোগায় ইনশিওরেন্স কোম্পানি। কিন্তু শরীরের যে ক্ষতি হয়ে যায় তার পুরণ কিভাবে হবে ?  হলিস্টিক হেলথ কেয়ার সেন্টার আসলে একটি পূর্নাঙ্গ  চিকিৎসা ব্যবস্থার নাম। এর পদ্ধতি সমূহের মধ্যে রয়েছে; ডায়েট ম্যানেজমেন্ট, স্ট্রেস ফ্রি টেকনিক, মেডিটেশন, যোগব্যায়াম, প্রাণায়াম, নিওরোবিক, অকুপ্রেশার, চিলেশন থেরাপি ও ইসিপি। এ বিষয়ে আরো বিস্তারিত জানতে অংশগ্রহণ করুন, স্বল্প ওষুধে জটিল রোগ নিয়ন্ত্রণ বিষয়ক কর্মশালায়।

ডাঃ গোবিন্দ চন্দ্র দাস।

আলোচনায়ঃ গিনেজ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডধারী বি কে চন্দ্র শেখর, ডিরেক্টর ও মাইন্ড বডি মেডিসিন (দিল্লি)।

ডাঃ হরিন্দার অনন্ত পাতিল (প্রিজেন্টিভ কার্ডিওলজি), ডিরেক্টর, স্পন্দন হার্ট কেয়ার সেন্টার (মুম্বাই)।

স্থানঃ শওকত ওসমান অডিটরিয়াম, পাবলিক লাইব্রেরি, শাহবাগ, ঢাকা।

আয়েজনেঃ হলিস্টিক হেলথ কেয়ার সেন্টার, পান্থপথ, ঢাকা।


Leave a Reply